সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪, বৈশাখ ১ ১৪৩১

বাস কন্ডাক্টর থেকে মহাতারকা

বিবেকবার্তা ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:১৯, ২৩ আগস্ট ২০২৩

বাস কন্ডাক্টর থেকে মহাতারকা

রজনীকান্ত

চেহারা ‘নায়কসুলভ’ নয়। মুখে কাঁচা-পাকা দাড়ি। মাথায় পড়েছে টাক। কিন্তু এই মানুষটির সিনেমা মুক্তি পেলে দক্ষিণ ভারতে যেন হইচই পড়ে যায়। কথা বলছিলাম রজনীকান্তের। শুধু সিনেমা নয়, সিনেমার বাইরের কাজ দিয়েও তিনি মন কেড়েছেন কোটি মানুষের।

দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেতাদের একজন রজনীকান্ত। বর্তমানে প্রতিটি ছবির জন্য তিনি পারিশ্রমিক নেন ৫০ থেকে ৬০ কোটি রুপি। তবে এত নাম-যশ-খ্যাতি পাওয়া তামিল তারকা রজনীকান্ত হয়ে ওঠার গল্পটা খুব একটা সহজ ছিল না।
 
পেশাগত জীবনে তামিল সিনেমার মহাতারকা হলেও তার জন্ম এক মারাঠি পরিবারে। বাবা রামোজি রাও গায়কোয়াড় ছিলেন পুলিশ কন্সটেবল আর মা জীজাবাঈ ছিলেন গৃহিণী। তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে রজনীকান্ত ছিলেন সবার ছোট। পারিবারিক অসচ্ছলতার কারণে কুলি, দিনমজুর ও বাস কন্ডাক্টরের মতো কাজও করতে হয়েছে এ অভিনেতাকে। এসবের পাশাপাশি পাড়ার নাটকেও চালিয়ে যেতেন শখের অভিনয়। পরবর্তী সময়ে এক বন্ধুর সহায়তায় মাদ্রাজ ফিল্ম স্কুলে অভিনয়ের ওপর প্রশিক্ষণ নেন তিনি। সেখান থেকেই নজরে পড়েন সে সময়ের খ্যাতিমান পরিচালক কে. বালাচরণের।

১৯৭৫ সালে বালাচরণের ‘অপূর্ব রাগাঙ্গল’ সিনেমার মাধ্যমে তামিল সিনেমায় অভিষেক ঘটে ‘থালাইভা’র। প্রথম ছবিতেই বাজিমাত করে নিজের জাত চিনিয়েছিলেন তরুণ রজনীকান্ত।

এরপরও দক্ষিণী সিনেমায় নিজের শক্ত অবস্থান গড়তে তাকে করতে হয়েছে কঠোর পরিশ্রম। প্রথমদিকে খ্যাতিমান অভিনেতা কমল হাসানের সঙ্গী হিসেবেই সিনেমায় দেখা গেছে তাকে। পরবর্তী সময়ে বেশ কিছু সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ ও প্রধান চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করে নেন এ মহানায়ক।
 
ক্যারিয়ারের প্রথম দিন থেকেই তার অভিনয় জাদুতে মন্ত্রমুগ্ধ করে রেখেছেন সবাইকে। তার প্রথম জীবনের মতোই ছিল তার প্রথম দিকের সিনেমাগুলোর চরিত্র। অত্যাচারিত কৃষক, দিনমজুর ও কুলির চরিত্রে অসাধারণ অভিনয় করে জায়গা করে নিয়েছেন দর্শকের মনে।
 
রজনীকান্ত মানেই সুপারহিট সিনেমা। তাই নির্ভয়ে তার পেছনে কোটি কোটি টাকা লগ্নি করতে রাজি যে কোনো প্রযোজক। কিন্তু তা সত্ত্বেও তরুণ ও নবাগত নির্মাতাদের সঙ্গে অভিনয়ের জন্য নিজের পারিশ্রমিক কমিয়ে নেন তিনি।অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ অর্থ ও খ্যাতির পাশাপাশি পেয়েছেন দর্শকের অকুণ্ঠ ভালোবাসা। তাইতো প্রিয় এ তারকাকে ‘থালাইভা’ বলেই ডাকতে বেশি পছন্দ করেন ভক্তরা। তামিল যার অর্থ ‘স্যার’ বা ‘গুরু’।
 
থালাইভার উল্লেখযোগ্য সিনেমাগুলোর মধ্যে রয়েছে: কালা, পেট্টা, দরবার, জেলার, আনাত্তে, রা.ওয়ান, শিবাজী, ত্যাগী ইত্যাদি।