শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪, আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

স্বপ্ন সফলতার জন্য সাধুবাদ জানাই প্রধানমন্ত্রীকে

পি আর প্ল্যাসিড

প্রকাশিত: ২৩:১৮, ২৫ জুন ২০২২

আপডেট: ০৯:৫৪, ১১ জুলাই ২০২২

স্বপ্ন সফলতার জন্য সাধুবাদ জানাই প্রধানমন্ত্রীকে

পদ্মাসেতু

আমাদের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে পদ্মাসেতুর উদ্বোধন করা দিয়ে। পদ্মাসেতু কেবল দেশের দক্ষিণ অঞ্চলের সাথে সংযোগ স্থাপনই নয়, এই সেতুর সকল কাজ সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে মানুষ চাইলেই সফল হতে পারে যদি সেই কাজে মানুষের আন্তরিকতা এবং ঐকান্তিকতা থাকে।
 
এই সফলতা কেবল ব্যক্তির বেলায়ই নয়, প্রতিষ্ঠান কিংবা রাষ্ট্রের বেলায় সমানভাবে প্রযোজ্য। পদ্মাসেতু আমাদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিলো। 
 
দেশ স্বাধীন হবার পর থেকে অনেক সরকার এলো গেলো, রাষ্ট্রপ্রধানও দেখেছি, এপর্যন্ত কোনো সরকারের রাষ্ট্রপ্রধানকে দেখিনি এতোটা আন্তরিক হতে, যতোটা শুরু থেকে হয়েছিলেন বর্তমান সরকার প্রধান শেখ হাসিনা (প্রধানমন্ত্রী)-কে হতে। তিনি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একইভাবে আন্তরিক ছিলেন এই পদ্মাসেতু নির্মান কাজের বেলায়, সফল তিনি হয়েছেন। সুতরাং ধন্যবাদ পাবার যোগ্য একমাত্র তিনিই। ওনার এই কাজে সফলতা দেখে দেশের মানুষ নতুন করে স্বপ্ন দেখতে শুরু করবে। তাঁর উপর ভরসা করবে, বিশ্বাস করবে। এমনকি নির্ভর কিংবা ভালোও বাসবে।
 
এতোদিন পদ্মাসেতু নিয়ে যারা অপপ্রচার চালিয়েছে তাদের এবার শুভ বুদ্ধির উদয় হোক। তারা বুঝুক শুধু শুধু বিরোধিতা করলেই সব থেমে যায় না। 
 
আজকের পর থেকে এই পদ্মাসেতুর উপর দিয়ে প্রতিদিন হাজার লক্ষ মানুষ নদীর উপর দিয়ে গাড়ি চালিয়ে নদী পারাপার হবে। কারো চেহারা বা পোশাক দেখে পদ্মাসেতু জানতে পারবে না কে মুসলিম কে হিন্দু কে বৌদ্ধ কে খ্রিস্টান, কে রাজাকার কে মুক্তিযোদ্ধা, কে আওয়ামী লীগ কে বি এন পি কে জামাত, কে সাম্প্রদায়িক কে অসাম্প্রদায়িক কিছুই বুঝতে পারবে না আজকের এই পদ্মাসেতু।
তাই -
পদ্মাসেতুর পক্ষে অনুরোধ করছি, বিষয়টি আমাদেরও অজানাই থাক। তবে ধর্ম আদর্শ জাতি গোষ্ঠী সব কিছু বেতিরকে সকলেই যেন এর রক্ষা বা যত্ন করার দায়িত্ব নেয়। কেউ যেন সেতুর পিলারে গিয়ে ধাক্কা না দেয় সেদিকেও নজর রাখা প্রয়োজন।
 
 দেশে সকল জনগোষ্ঠীর পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের এই কালজয়ী সফলতার জন্য ধন্যবাদ এবং শুভ কামনা করছি।
 
 
 
সম্পাদক 
বিবেকবার্তা